আজ : ২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
Breaking News

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী কমিটি গঠন নিয়ে বাকযুদ্ধে বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগ

বরিশাল অফিস : গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিতে ও কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে জঙ্গি হামলার ঘটনায় দেশে ও দেশের বাইরে আলোচনার বিষয় ছিলো সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ। এই জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে শাষক দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও তাদের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন সহ ১৪ দলীয় জোট সারাদেশে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ কমিটি গঠন করার নির্দেশ দেয়। তারই ধারাবাহিকতায় বরিশালে শুর“ হয় কমিটি গঠনের প্রস্তুতি। সেই ক্ষেত্রে জেলা আওয়ামীলীগের পূনাঙ্গ কমিটি থাকায় ১৪ দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে ইতিমধ্যে গত ১৩ জুলাই বুধবার জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. তালুকদার মো. ইউনুসের নেতৃত্বে ১৪ দলের এক জর“রি সভা অনুষ্ঠিত হয় সেখানে তিনি বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গি প্রতিরোধের ওই কমিটি ১৫ সদস্য বিশিষ্ট হতে পারে। এদিকে গত ১৪ জুলাই সদর আসনের এমপি জেবুন্নেছা আফরোজের সভাপতিত্বে ১৪ দল মহানগরের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সভায় বরিশালের ১৪ দলের রাজনীতিতে সরব বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টি ও জাসদ ইনু গ্রুপের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। এ সভায় সংসদ সদস্য জেবুন্নেছা আফরোজকে ১৪ দলের মহানগরের সমন্বয়ক করে একটি কমিট গঠন করা হয় বলে পরদিন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। এই ঘোষনার ফলে ফুসে উঠে মহানগর আওয়ামীলীগের ৩০ ওয়ার্ডের সভাপতি সম্পাদকরা জড়িয়ে পড়ে বাক যুদ্ধে। ৩০টি ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগ সভাপতি এবং সম্পাদকের পক্ষে ১৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর লিটু সংবাদ সম্মলনে লিখিত বক্তব্যে বলেন, বরিশালের বিভিন্ন দৈনিক সংবাদ পত্রে মহানগর ১৪ দলের সমন্বয় কমিটি গঠনের একটি খবর প্রকাশিত হয়। যে খবরে আমরা বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের ৩০টি ওয়ার্ডের সভাপতি ও সম্পাদকগন বিস্মিত হয়েছি। বরিশাল মহানগরের বিভিন্ন ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের ৪২ জন সভাপতি ও সম্পাদক রয়েছে। যেখানে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতারা কোন সম্মতি দেয়না সেখানে মহানগর আওয়ামীলীগের যে কেউ না হয়েও একজন সদর আসনের সংসদ সদস্যকে কিভাবে ১৪ দলের সমন্বয়ক করা হয় তা আমাদের বুঝে আসেনা। একদিকে বরিশাল ৫ আসনের সংসদ সদস্য জেবুন্নেছা আফরোজ সহ বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আফজালুল করিম অন্যদিকে মহানগর আওয়ামীলীগের অন্যতম নেতা সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ ও মহানগরের ৩০টি ওয়ার্ডের সভাপতি এবং সম্পাদক। এমপিকে সমন্বয়ক হিসেবে ঘোষনা করায় সংবাদ সম্মেলনে গত ১৬ জুলাই শনিবার দুপুর ২টায় বরিশাল মহানগর ১৪ দলের সমন্বয় কমিটি গঠনে স্বেচ্ছাচারিতার প্রতিবাদ তুলে তারা সংবাদ সম্মেলন করেন। এদিকে শরিক দলের নেতা ওয়ার্কার্স পার্টি জেলা সভাপতি অধ্যাপক নজরুল হক নীলু ও জাসদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. আব্দুল হাই মাহবুব এক যুক্ত বিবৃতিতে ১৪ দলের মহানগর সমন্বয় কমিটি করার কথা অস্বীকার করেন। এদিকে কোন ঘোষনা ছাড়াই গত সোমবার বেলা ১১টার দিকে আওয়ামীলীগের অন্যতম নেতা সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ, জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যলয়ের সামনে দিয়ে, জঙ্গি ও সন্ত্রাস বিরোধী শ্লোগান দিয়ে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী এক বিশাল সমাবেশে ও গণমিছিল এর আয়োজনের মাধ্যদিয়ে তার সন্ত্রাস ও জঙ্গি বিরোধী কার্যক্রম বিশাল সোডাউন এর মাধ্যমে যানান দেয়। এ ব্যপারে মুঠো ফোনে বরিশাল ওয়ার্কার্স পার্টি জেলা সভাপতি অধ্যাপক নজরুল হক নীলু ও জাসদ সাধারণ সম্পদিক এ্যাড. আব্দুল হাই মাহবুব বলেন, গত ১৪ জুলাই সন্ধায় ১৪ দলের সকল নেতৃবৃন্দদের উপস্থিতিতে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় এসময় এই আন্দলনে নেতৃত্ব দেবার জন্য সংসদ সদস্য জেবুন্নেছা আফরোজকে দায়িত্ব দেওয়া হয় কিন্তু তাকে ১৪ দলরে মহানগরের সমন্বয়ক হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়নি। এ ব্যপারে মুঠো ফোনে বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আফজালুল করিম‘র কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মহানগর ১৪ দলের নেতাকর্মীরা আলোচনা করে সংসদ সদস্য জেবুন্নেছা আফরোজকে তাদের সমন্বয়ক বানিয়েছেন। এটা সম্পূর্ন তাদের বিষয়। এ বিষয়ে আমার কোন হাত নেই। কাউন্সিলর ও আওয়ামীলীগের নেতা নাইমুল হাসান লিটু‘র বলেন, একজন সংসদ সদস্যকে দাড় করিয়ে তাকে ১৪ দলের সমন্বয়ক বানিয়ে দেওয়া হচ্ছে। আর আফজাল সাহেব গায়ের জোরে এসব করছেন যা করে মহানগর আওয়ামীলীগ টিকিয়ে রাখা সম্ভব নয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বরিশাল জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে, বরিশাল বাসির মধ্যে দেখাগেছে মিশ্র প্রতিকৃয়া। তবে বাক-বিতন্ডা যাই হোকনা কেনো ২১ জুলাই এর মধ্যে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করতে হবে বলে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ জানিয়েছে। এ ব্যাপারে সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ বলেন সিনিয়র নেতাদের সম্পর্কে আমি কোন মন্তব্য করব না। তবে বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে ও সন্ত্রাস জঙ্গীবাদ বিরোধী অবস্থানে সাধারণ মানুষের কাছে সবকিছুই দৃশ্যমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Comment moderation is enabled. Your comment may take some time to appear.