আজ : ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
Breaking News

বাংলা থিয়েটার কানাডায় নটনন্দন

ঢেঁকি স্বর্গে গেলেও ধান ভানে, আর নাট্যশিল্পী উত্তর আমেরিকায় গিয়েও নাটক করেন’ বলছি ঢাকার অন্যতম নাট্যশিল্পী মাহমুদুল ইসলমান সেলিমের কথা। ২০১৩ সাল থেকে কানাডায় বসবাস করছেন তিনি। ২০১৫ সালের ১ জানুয়ারি কানাডার ক্যালগেরি শহরে গড়ে তুলেছেন বাংলা থিয়েটার ‘নটনন্দন’।
কানাডায় বাংলা থিয়েটার ‘নটনন্দন’
৬ আগস্ট কানাডার ক্যালগেরি শহরের অরফিয়াস থিয়েটারে মঞ্চস্থ হবে দলটির প্রথম নাট্যপ্রযোজনা ‘খোলস’। নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন মাহমুদুল ইসলাম সেলিম।
এ প্রসঙ্গে সেলিম বলেন, ‘১৯৯৫ সালে লাকী ইনাম রূপান্তরিত এবং ড. ইনামুল হক নির্দেশিত এই ‘খোলস’ নাটকটি ছিলো নাগরিক নাট্যাঙ্গনের প্রথম প্রযোজনা। এতে আমার অভিনয় এখনো আমাকে নস্টালজিক করে তোলে। অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে এর সঙ্গে। তাই প্রথম প্রযোজনা হিসেবে ‘খোলস’কে বেছে নেওয়া
নাটকটিতে অভিনয় করছেন- শুভ্র দাস শুভ, মাহবুবা নূর অনু, শুভ চৌধুরী, শর্মিলা নন্দী, রীতা কর্মকার, সালেহা আশরাফ কান্তা, তুরিন চৌধুরী, রিপন রশিদ, খায়ের খন্দকার রুবেল, নক্ষত্র ও মাহমুদুল ইসলাম সেলিম। নাটকটির সহকারী নির্দেশক হিসেবে আছেন আহসান রাজীব বুলবুল, আলোক পরিকল্পনায় ইমদাদুল হক, মঞ্চ পরিকল্পনায় শৈবাল দত্ত ও আবহ সংগীত পরিকল্পনায় ইকবাল কবির।
মাহমুদুল ইসলাম সেলিম ২৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে থিয়েটারের সঙ্গে যুক্ত আছেন। নাট্যজন আলী যাকেরের হাত ধরে ১৯৯০ সালে সেলিম যুক্ত হন নাগরিক নাট্যসম্প্রদায়ে। এর পাঁচ বছর পরে ১৯৯৫ সালে নাট্যজন ড. ইনামুল হক ও লাকী ইনামের সঙ্গে গড়ে তুলেন নাগরিক নাট্যাঙ্গন। ২০১৩ সালে কানাডায় অভিবাসী হওয়ার আগ পর্যন্ত নাগরিক নাট্যাঙ্গনের সঙ্গেই তিনি যুক্ত ছিলেন
নাট্যদলে যুক্ত থেকে একাধারে নাটক রচনা, নাট্যনির্দেশনা ও অভিনয়ের পাশাপাশি মঞ্চের পেছনের কাজ যেমন আলোক পরিকল্পনা, মঞ্চ পরিকল্পনা, নাট্য পত্রিকা সম্পাদনার কাজও তিনি বেশ পারঙ্গমতার সাথে করেছেন। মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গল্প অবলম্বনে তার রচিত ‘প্রাগৈতিহাসিক’ এখনও ঢাকার মঞ্চে সফলভাবে মঞ্চস্থ হচ্ছে।
দেশে থাকাকালীন মঞ্চ ছাড়াও মাহমুদুল ইসলাম সেলিম রেডিও, টেলিভিশনে অভিনয় করতেন। ২০১৩ সালে কানাডার অভিবাসী হয়ে আলবার্টা প্রভিন্সের ক্যালগেরি শহরে বসবাস শুরু করেন তিনি। তখন থেকেই তার স্বপ্ন ছিল বাঙালীদের শুরু করবেন বাংলা থিয়েটারের কাজ। গোছাতে গোছাতে সময় লেগে গেল প্রায় ২ বছর।
এরপর ২০১৫ সালের জানুয়ারির ১ তারিখে ক্যালগেরি শহরে গড়ে তুললেন বাংলা থিয়েটার ‘নটনন্দন’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Comment moderation is enabled. Your comment may take some time to appear.