আজ : ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
Breaking News

বরিশাল কীর্তনখোলা নদীর গ্রাসে বিলিন হচ্ছে চরকাউয়া সাত আনী গ্রাম

ষ্টাফ রিপোটার : বরিশাল কীর্তনখোলা নদীর গ্রাসে বিলিন হচ্ছে চরকাউয়া সাত আনী গ্রাম । শত শত পরিবার ভিটা বাড়ী ছেরে অন্যত আশ্রয় খুচছে । অসহায় এপরিবাররা এখন পর্যন্ত সরকারী – বেসরকারী কোন ধরনের সাহায্য সহযোগীতা পায়নি । সহায় সম্ভল হারিয়ে দিশে হারা নদী ভাঙ্গলী মানুষ গুল মানবতার জীবন যাপন করছে । ভাঙ্গল রোদে সরকারের এক শত নব্বই কোটি টাকা বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে । এনিয়ে একাধীক বার স্থানীয় সংসদ সদস্য জেবুন্নেছা আফরোজ,বরিশাল সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু , ইউপি চেয়ারম্যান ছবি , বরিশাল জেলা প্রশাসক ডা. গাজী মো : সাইফুজ্জামানের দ্বারস্ত হয়ে ও কোন রকমের সহযোগীতা নাপেয়ে বুধবার ( ২০ জুলাই ) দুপুরে ভাঙ্গল কবলিত পাড়ে বসে মানব বন্ধন করেন অসহায় পরিবারের লোকজন । মানব বন্ধনের পরে তারা জানায় , রহমাতিয়া জামে মসজিদ , একটি ব্রিক ফিল্ড , বারোটি বসত ঘর , সাতটি দোকান ঘর , রাস্তা ঘাট এক রাতের ভিতর বিলিন হয়ে যায় । তবে কোন রকমের দূঘটনা ঘটেনি । এখন পর্যন্ত ঔখানে নদী ভাঙ্গল চলমান রয়েছে । আতংকে দিন কাটাচ্ছে খেটে খাওয়া ঔ সকল মানুষ কখন যেন ঘুমন্ত অবস্তায় প্রাণ কেড়ে নেয় খেও কীর্তনখোলা নদী । যারা বাড়ী ঘর ভিটে মাটি হারিয়ে দেওলিয়া হয়েছে তাদের মধ্যে উল্লেখ্য যোগ্য আ : মান্নান , রহমান , আ : বারেক , মোহাম্মদ , সোহরাব , হামিদ মল্লিক , বেল্লাল , আ : মালেক , আ : মজিদ , আ হানিফ , কালু , ছাব্বির , খোকন , ছিদ্দিক , মো : ইউনুচ চকিদার । গ্রাম পুলিশ ইউনুচ চকিদার বলেন , এখন পর্যন্ত আমাদের এখানের ভাঙ্গল দেখতে কেউ আসেনি । অসহায় পরিবারদের একটু আশ্রয়ের ঠাই চায় , ভাঙ্গন রোধে সরকারের পদক্ষেপ নেওয়ার জোর দাবী জানান বরিশাল চরকাউয়া সাত আনী গ্রামের নদী ভাঙ্গন কবলিত পরিবার গুল ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Comment moderation is enabled. Your comment may take some time to appear.