আজ : ৯ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
Breaking News

ফার্স্ট ফ্যামিলির’যুক্তরাষ্ট্রের নতুন সদস্য কারা

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে তিনি দায়িত্ব নেবেন সামনের জানুয়ারি মাস থেকে। এ সময় আর কারা তাঁর সঙ্গে হোয়াইট হাউজে উঠতে যাচ্ছেন?
মেলানিয়া ট্রাম্প: স্লোভেনিয়ায় জন্ম নেয়া সাবেক মডেল মেলানিয়া এখন ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্ত্রী। স্বাভাবিকভাবেই তিনি পাচ্ছেন ফাস্ট লেডির মর্যাদা। ২০০৫ সালে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। অক্টোবরে সিএনএনের একটি সাক্ষাৎকারে তাকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, তার স্বামীর কোন বিষয়টি তিনি পরিবর্তন করতে চান। তার উত্তর ছিলো, তার টুইটিং।
ব্যারন ট্রাম্প: এই দম্পতির একমাত্র পুত্র ১০ বছরের ব্যারন ট্রাম্প। যদিও নির্বাচনী প্রচারণার সময় তাকে ভালোভাবেই দেখা গেছে, তারপরেও দশ বছরের ব্যারনকে নজর থেকে দূরেই সরিয়ে রাখা হয়েছে। সে তার বাবার সঙ্গে গলফ খেলতে ভালো বাসে। সে তার মায়ের ভাষা, শ্লোভেনিয়ানও ভালো বলতে পারে বলে জানা যায়।
জারেড কুশনার: ডোনাল্ড ট্রাম্পের বড় মেয়ে ইভানকার স্বামী জারেড কুশনার। তিনি নিউইয়র্কের একটি নির্মাণ প্রতিষ্ঠানের মালিকের ছেলে এবং সাপ্তাহিক অবজারভার পত্রিকার মালিক।
ইভানকা ট্রাম্প: ডোনাল্ড ট্রাম্পের বড় মেয়ে, যাকে অনেকেই ভালোভাবে চেনেন। প্রথম স্ত্রী ইভানার মেয়ে। প্রথম দিকে তিনি মডেলিং করলেও, এখন তিনি ট্রাম্প অর্গানাইজেশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং মি. ট্রাম্পের রিয়েলিটি শো অ্যাপ্রেন্টিসের একজন বিচারক। ইহুদি স্বামী জারেডকে ২০০৯ সালে বিয়ে করার পর তিনিও ইহুদি ধর্ম গ্রহণ করেন।
টিফান্নি ট্রাম্প: দ্বিতীয় স্ত্রী মারলা ম্যাপেলসের ঘরে ডোনাল্ড ট্রাম্পের দ্বিতীয় সন্তান। সাবেক অভিনেত্রী ও টিভি তারকা। নিজের লাইফস্টাইল নিয়ে টুইটার এবং ইন্সটাগ্রামের তার অনেক পোস্ট রয়েছে। নির্বাচনী প্রচারণার সময় তাকে খুব কমই দেখা গেছে।
ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র: ইভানা আর ডোনাল্ড ট্রাম্পের বড় ছেলে, ইভানকা ট্রাম্পের ভাই। তিনি ট্রাম্প অর্গানাইজেশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট। বিভিন্ন সময় প্রাণী শিকারের পর সেগুলোর সঙ্গে ছবি তুলে তিনি সমালোচনার শিকার হয়েছেন।
ভেনেসা ট্রাম্প: ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়রের স্ত্রী। ২০০৫ সালের তাদের বিয়ে হয়। এই দম্পতির পাঁচটি সন্তান রয়েছে। ছোটবেলায় তিনি মডেলিং করতেন। একসময় লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিওর সঙ্গে তার প্রেম ছিলো। তিনি নিয়মিত শুটিং প্রাকটিস করেন।
কাই ট্রাম্প: ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র এবং ভেনেসা ট্রাম্পের বড় ছেলে। তার আরো চারজন ভাই বোন রয়েছে।
এরিক ট্রাম্প: ইভানা আর ডোনাল্ড ট্রাম্পের তৃতীয় সন্তান। তিনিও ট্রাম্প অর্গানাইজেশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট। তিনি ট্রাম্প ওয়াইনারির প্রেসিডেন্ট এবং গলফ ক্লাবের দেখভাল করেন। ২০০৬ সালে তিনি এরিক ফাউন্ডেশন তৈরি করেন, যেটি শিশুদের জীবনের ঝুঁকি রয়েছে, এমন রোগ প্রতিরোধে গবেষণা করে। ভাইয়ের মতো তার বিরুদ্ধে বুনো প্রাণী শিকার আর সেগুলোর সঙ্গে ছবি তোলার অভিযোগ রয়েছে।
লারা ইয়োনাস্কা: এরিক ট্রাম্পের স্ত্রী। সাবেক টেলিভিশন প্রোডিউসার লারা ২০১৪ সালে এরিককে বিয়ে করেন। বিয়ের মাত্র দুই সপ্তাহ আগে ঘোড়ায় চড়তে গিয়ে তার দুই হাতের কজ্বি ভেঙ্গে যায়। যদিও তার স্বামীর বুনো প্রাণী শিকারের শখ রয়েছে, কিন্তু লারা প্রাণী রক্ষা বিষয়ক একজন আইনজীবী। তিনি ট্রাম্প ফাউন্ডেশনের সঙ্গেও জড়িত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Comment moderation is enabled. Your comment may take some time to appear.