আজ : ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
Breaking News

প্রভাবশালী বলেই ছাড় পাচ্ছেন নুসরাত!

সাড়ে চার বছর আগের পার্ক স্ট্রিট ধর্ষণ মামলার তথ্য গোপন করা সত্ত্বেও টালিউডের জনপ্রিয় নায়িকা নুসরাত জাহানকে কৌশলে ‘বাঁচানোর’ অভিযোগ উঠছে কলকাতা পুলিশের বিরুদ্ধে। কেন এই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে না, তা নিয়েও প্রশ্ন ওঠেছে।

পার্ক স্ট্রিটে ধর্ষণের শিকার প্রয়াত সুজেট জর্ডানের আইনজীবী অনির্বাণ গুহ ঠাকুরতা জানান, যেহেতু এটা বিচারাধীন বিষয়, তাই এখনই এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করছি না।

তদন্তকারীরা জানান, সরাসরি কোনও ভূমিকা না থাকলেও, নুসরাত যা করেছেন তা গুরুতর অপরাধের পর্যায়েই পড়ে। ২০১২ সালের পার্ক স্ট্রিটে চলন্ত গাড়িতে ধর্ষণ করা হয় সুজেটকে। মূল অভিযুক্ত কাদের খান ধরা না পড়লেও, তার বাকি সঙ্গীরা ধরা পড়ে কয়েক দিনের মধ্যেই। এরপরেই কাদেরের পারিবারিক সূত্রে দাবি করা হয়, অভিনেত্রী নুসরাতের তার বিয়ের দিন ঠিক হয়ে গেছে। নুসরাতও সংবাদমাধ্যমকে সেটার সত্যতা স্বীকার করে জানান, তিনিও চান কেউ অপরাধ করে থাকলে তার শাস্তি হোক।

পুলিশ কর্তাদের নুসরাত জানান, ওই ঘটনার পর কাদেরের সঙ্গে তার দেখা হয়নি। কিন্তু মুম্বাইয়ের জুহুতে ‘হোটেল ফোর সিজনস’ খোঁজ নিয়ে কলকাতা পুলিশ জানতে পারে ধর্ষণের ঘটনার পর একই মাসেই কাদের খানের সঙ্গে হোটেলটিতে ‘চেক ইন’ করেছিলেন তিনি। তারপর থেকে কাদেরের খোঁজ আর পাননি পুলিশ কর্তারা।

সূত্রের খবর, পুলিশকর্তারা জানতে পারেন মুম্বাইয়ে দেখা করার পর নুসরাত কলকাতা ফিরে এলেও, কাদেরকে পাটনা যাওয়ার বিমানের টিকিট কেটে দিতে তিনিই সাহায্য করেন। নুসরাতকে এ বিষয়ে কোনও জবাব দেননি। আইনজীবী জয়ন্তনারায়ণ চট্টোপাধ্যায় রবিবার বলেন, এই ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর নুসরাত বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে মঞ্চে উঠেছেন। অর্থাৎ তিনি নিজে যে প্রভাবশালী সেটা বোঝানোর চেষ্টা করেছেন। অবিলম্বে তাকে গ্রেফতার না করা হলে সবার কাছে ভুল বার্তা যাবে।

নুসরাত ছাড় পেয়ে গেলে একই যুক্তিতে কাদেরের ভাগ্নে ফয়জলকেও কার্যত কিছুই করা যাবে না। রবিবার এক পুলিশকর্তা জানান, এই মামলায় নুসরাতের কোনও বয়ান সরকারিভাবে রেকর্ড করা হয়নি। এমনকি তাকে সাক্ষীও করা হয়নি। চার্জশিটে তার ভূমিকার কথা উল্লেখ করাও হয়নি। ফলে বলা যেতেই পারে, তাকে আড়াল করে দেয়া হয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, এই মামলার বিচারপ্রক্রিয়া শুরুর সময় নুসরাতের সঙ্গে কাদেরের সম্পর্কের কথা আদালতে তুলে ধরেন সুজেটের আইনজীবী অনির্বাণ গুহ ঠাকুরতা। কিন্ত্ত তখনও কাদের ধরা পড়েনি। আইনজ্ঞদের ব্যাখ্যা, এ বার কাদের ধরা পড়েছে। ফলে তার বয়ানের ভিত্তিতে নুসরাতকে এই মামলায় যুক্ত করা যেতেই পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Comment moderation is enabled. Your comment may take some time to appear.