আজ : ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
Breaking News

উদ্বেগ খালেদার বিরুদ্ধে নড়াইলে গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় বিএনপির

শহীদদের সংখ্যা নিয়ে ‘বিরূপ বক্তব্য’ দেওয়ার মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নড়াইলের আদালতের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আদেশে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে দলটি।

বুধবার বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক বিবৃতিতে বিষয়টিকে ‘বহুদলীয় গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার এবং বিরোধী দলকে হয়রানি করার অপকৌশল’ হিসেবে অভিহিত করেন।

নড়াইলের কালিয়া উপজেলার চাপাইল গ্রামের মো. রায়হান ফারুকী ইমাম বাদী হয়ে ২০১৫ সালের ২৪ ডিসেম্বর খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলাটি করেন।

মামলায় মঙ্গলবার নড়াইলের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মো. জাহিদুল আজাদ বিএনপি চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আদেশ দিয়ে আগামী ৩১ অক্টোবর মামলারপরবর্তী দিন ধার্য করেন।

বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, “নড়াইলে দায়েরকৃত মামলায় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ারা জারির ঘটনায় দেশবাসী ও আমাদের দল বিএনপি বিস্ময়ে হতবাক হয়েছে। ন্যায়-অন্যায় বিবেচনায় না নিয়ে বিরোধী দলকে ঘায়েল করতে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলা দায়ের এবং আদালতের মাধ্যমে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি এখন ক্ষমতাসীনদের নীতিতে পরিণত হয়েছে।

“আমরা মনে করি, এটা হচ্ছে, দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার জন্য এবং বিরোধী দলকে হয়রানি করবার অপকৌশল। বেগম খালেদা জিয়া তিন তিন বারের নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী ও সংসদে বিরোধী দলীয় নেত্রী ছিলেন। তার বিরুদ্ধে এ ধরনের মামলা আমলে নেওয়া ও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি জনগণ মেনে নেবে না।”

গত বছরের ২১ ডিসেম্বর খালেদা জিয়া ঢাকায় মুক্তিযোদ্ধাদের একটি সমাবেশে বলেন, “স্বাধীনতা যুদ্ধে ত্রিশ লাখ শহীদ হয়েছেন। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে কতজন শহীদ হয়েছেন, তা নিয়ে বির্তক আছে।”

এই বক্তব্যের কারণে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন স্থানে আরও অনেক মামলা হয়েছে।
বিবৃতিতে নড়াইলের মামলার প্রসঙ্গ তুলে মির্জা ফখরুল বলেন, “দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া স্বাধীনতা যুদ্ধের ঘোষণা প্রদানকারী শহীদ জিয়াউর রহমানের সহধর্মীনি। তিনি নিজে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে পাকিস্তান হানাদার বাজিনীর হাতে বন্দি হয়েছেন এবং তিনি কারা নির্যাতন সহ্য করেছেন।

“পরবর্তীকালে দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য দীর্ঘ ৯ মাস স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন করে দেশনেত্রী গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে সফল হয়েছেন এবং এখনো গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য শত জুলুম-নির্যাতন সহ্য করে নিরলস সংগ্রাম করে চলেছেন।”

বিএনপি মনে করে, গণতান্ত্রিক অধিকারকে হরণ করার জন‌্যই মামলাটি করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Comment moderation is enabled. Your comment may take some time to appear.