আজ : ৩০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং , ১৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Breaking News

সৈয়দ আশরাফ:অহেতুক বিতর্ক নয় ইসি নিয়ে :

নির্বাচন কমিশন নিয়ে ‘অহেতুক’ বিতর্ক তৈরি না করতে বিএনপির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগের ধানমণ্ডির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, “নির্বাচন কমিশন নিয়োগ দেন রাষ্ট্রপতি। উনি সবার সঙ্গে আলাপ করেই সেটা দেন। তিনি যে ইলেকশন কমিশন গঠন করবেন সেটাই হবে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য।”

কাজী রকিবউদ্দীন আহমদের নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ফেব্রুয়ারিতে। পাঁচ সদস্যের নতুন কমিশন নিয়োগে আগেরবারের এবারও ‘সার্চ কমিটি’করা হচ্ছে বলে ইতোমধ‌্যে আভাস দিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

মঙ্গলবার এক আলোচনা অনুষ্ঠানে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, “সার্চ কমিটি করেন, আর যাই করেন, জনমতের বাইরে গিয়ে কোনো কমিটি এদেশের মানুষ মেনে নেবে না।”

এর জবাবে জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বৃহস্পতিবার বলেন, “আমরা যদি সবকিছু নিয়েই বিতর্ক করি, হাই কোর্ট, সুপ্রিম কোর্ট, নির্বাচন কমিশনসহ সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলো নিয়ে, তাহলে আমরা যাব কোথায়? আমাদের মাথা ঠেকানোর জায়গা কোথায়?

বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, “অহেতুক সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিয়ে যদি বিতর্ক করি, তাহলে সভ্যতা থাকবে না, আইন থাকবে না। এই দেশে তাহলে গণতন্ত্র থাকবে?”

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, দেশের মানুষের সর্বোচ্চ অর্জন হল, এই প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিতর্কের উর্ধ্বে রাখা। এ কারণেই পৃথিবীতে সভ্যতা টিকে আছে।

“দেশে যদি আইন-কানুন না থাকে, তাহলে সভ্যতাই থাকবে না। এই সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলো সভ্যতার একেকটি স্তম্ভ। এই প্রতিষ্ঠান নিয়ে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করার কিছু নাই। সুতরাং আশা রাখি, আমরা এই সব প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিতর্কের উর্ধ্বে রাখব এবং সম্মান দেখাব।”

জাতিসংঘ অধিবেশন শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেশে ফেরার দিন ২৬ সেপ্টেম্বর গণঅভ্যর্থনা কর্মসূচি সফল করতে ঢাকা ও আশপাশের জেলা-উপজেলার আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক এবং স্থানীয় সাংসদদের নিয়ে এক বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলন আসেন আশরাফ।

অন্যদের মধ্যে ক্ষমতাসীন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী ও বি এম মোজাম্মেল হক এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Comment moderation is enabled. Your comment may take some time to appear.