আজ : ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Breaking News

যতদিন বেঁচে আছি ফরিদপুর বাসীর পাশে থেকে খেদমত করে যাব, মোঃওবায়দুল ইসলাম!

মোঃবশির আহাম্মেদ ,বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি :বরিশালের বাকেরগঞ্জের ফরিদপুর ইউনিয়ন বাসীর প্রত্যাশা পূরণে কাজ করার অঙ্গীকার এবং বদ্ধপরিকর সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি ও যুবলীগের ত্যাগী ও পরিক্ষীত সৈনিক মোঃওবায়দুল ইসলাম। বাকেরগঞ্জ উপজেলার ০৬-নং ফরিদপুর ইউনিয়নের বিশিষ্ট সমাজসেবক, শিক্ষানুরাগী সৎ, আদর্শিক, ত্যাগী ও পরিক্ষীত সকলের আস্থাভাজন নেতা আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ।
দল-মত-নির্বিশেষে দীর্ঘ ১৩ বসর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি ও যুবলীগ নেতা আওয়ামীলীগের নৌকার প্রতীকে দলীয় মনোনয়ন মধ্য দিয়ে চেয়ারম্যান হিসেবে পেতে চায় এলাকাবাসী। আসন্ন বাকেরগঞ্জ উপজেলার ১৪ টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চায়ের দোকান থেকে শুরু করে পাড়া মহল্লায় সর্বত্র এখন নির্বাচনী আমেজ। দল-মত নির্বিশেষে ফরিদপুর ইউনিয়নের ভোটারদের মুখে মোঃ ওবায়দুর ইসলামের নাম শোনা যায়। বর্তমান সফল যুবলীগ নেতা স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বুকে ধারণ করা নেতা, ইউনিয়নের তার নিজ অর্থায়নে এলাকার দরিদ্র ও অসহায় মানুষকে আর্থিক সাহায্য প্রদান করেছেন। সুশিক্ষায় শিক্ষিত এই নেতা ইউপি চেয়ারম্যান হলেন শিক্ষা-ব্যবস্থাকে আরো গতিশীল করার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী মুজিববর্ষের অঙ্গীকার কে বাস্তবে রূপায়ন করবেন । মহামারী করোনা ভাইরাসের সময় হতদরিদ্র মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন। ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ও বিএম কলেজ ছাত্রলীগের রাজনীতি ওতপ্রোতভাবে জড়িত থাকার কারনে ইউনিয়নের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন। তিনি নিজ ইউনিয়নবাসীসহ সর্বস্তরের জনগনের কাছে দোয়া চেয়েছেন। সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে দলের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।
ইউনিয়ন বাসীর সহ সর্ব-সাধারণের প্রত্যাশা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ তাকে ফরিদপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দিলে তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে নিজেকে উৎসর্গ করবেন। তিনি নির্বাচিত হলে ০৬ নং ফরিদপুর ইউনিয়নের যুব সমাজকে লেখাপড়ায় মনোযোগী ও খেলাধুলায় আগ্রহী করে তোলার লক্ষ্যে কাজ করে যাবেন। মাদক বাল্যবিয়ে ও নেশা থেকে যুব সমাজকে দূরে রাখার জন্য তিনি বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করবেন। সব কিছু বিবেচনা করে দল যদি ফরিদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে তাকে মনোনয়ন দেয়, তবে তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে অত্র ইউনিয়ন বাসীর পাশে থেকে বিভিন্ন সরকারি সাহায্য সহযোগিতা যেমন-বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, ভিজিডি, ভিজিএফ, রেশন কার্ড সহ বিভিন্ন সরকারী সেবা দ্বারপ্রান্তে পৌছে দিবেন এবং ইউনিয়ন বাসীকে সাথে নিয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে উন্নয়ন মুলক কর্মকান্ড চালিয়ে যাবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলমত নির্বিশেষে সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি ও বর্তমান যুবলীগ নেতা মোঃ ওবায়দুল ইসলাম কে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন দিয়ে চেয়ারম্যান পদে নৌকার মাঝি হিসাবে মনোনীত করা হয় এমনটাই প্রত্যাশা সাধারণ জনতার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Comment moderation is enabled. Your comment may take some time to appear.