আজ : ২২শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং , ১০ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
Breaking News

বিয়ের প্রলোভনে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ: ভিডিও ইন্টারনেটে

রংপুর কারমাইকেল কলেজের অনার্স পড়ুয়া এক ছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ধর্ষণ এবং ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ইন্টারনেটে ছড়ানোর অভিযোগে নূর মোহাম্মদ নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন( পিবিআই)।

বুধবার রংপুর পিবিআই কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে পিবিআই-এর বিভাগীয় পুলিশ সুপার মজিদ আলী সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, নীলফামারী জেলার ডিমলা থানার দক্ষিণ ঝুনাগাছ চাপানী গ্রামের শফিয়ার রহমানের ছেলে নূর মোহাম্মদ। ডিমলা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট থেকে ডিপ্লোমা পাশ করে চাকরির জন্য রংপুর কারমাইকেল কলেজ এলাকা লালবাগে মেসে বসবাস শুরু করেন। এখানে থেকেই নূর মোহাম্মদের সাথে পরিচয় হয় ডিমলা এলাকার ওই ছাত্রীর সঙ্গে। পরে ছাত্রীর সঙ্গে মিথ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে নূর মোহাম্মদ। পরে বিয়ের প্রলোভনে সে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে এবং ধর্ষণের ভিডিও দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ করে।

তিনি আরও জানান, এরপর থেকেই নূর মোহাম্মদ ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে মেয়েটিকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। এরপরও নূর মোহাম্মদ ওই ভিডিও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং বন্ধুদের মোবাইলে ছড়িয়ে দেয়। এতে ওই ছাত্রী মঙ্গলবার রংপুর কোতয়ালি থানায় তার বিরুদ্ধে পর্ণগ্রাফি ও ধর্ষণের মামলা করেন। এরপর রংপুর পিবিআই এর এসআই সালেহ ইমরান অভিযান চালিয়ে লালবাগ কলেজপাড়া এলাকা থেকে নূর মোহাম্মদকে গ্রেফতার করে। তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় দুটি মোবাইল ফোন, একটি পেন ড্রাইভ, তিনটি মেমোরি কার্ড, চারটি মোবাইল সিম কার্ড এবং ধর্ষণের ওই ভিডিও চিত্র।

পিবিআই এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শহিদুল্লাহ কাওছার সাংবাদিকদের জানান, গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নূর মোহাম্মদ ওই ছাত্রীসহ আরও কয়েক মেয়েকে একই কায়দা ধর্ষণ করেছে বলে স্বীকার করেছে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, গাইবান্ধার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন, দিনাজপুরের মধুসুদন রায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Comment moderation is enabled. Your comment may take some time to appear.