আজ : ৩০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং , ১৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Breaking News

বিএনপির সংকট নিরসনে উদ্যোগের আহ্বান

নির্বাচন কমিশনসহ সকল সাংবিধানিক ইনস্টিটিউশনকে বিতর্কমুক্ত রাখতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের বক্তব্যকে স্বাগত জানিয়েছে বিএনপি। একইসঙ্গে বর্তমান সংকটকে গুরুত্ব দিয়ে সরকার অবিলম্বে বিরোধীদলের (বিএনপি) সঙ্গে আলোচনা করে সংকট নিরসনের উদ্যোগ নিবে বলে প্রত্যাশা করছে দলটি।

আজ বৃহস্পতিবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের ভাইস চেয়ারপারম্যান শামসুজ্জামান দুদু এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা কখনই জাতীয় অস্থিরতা পছন্দ করি না। এবং অগ্রগতির জন্য অস্থিরতাকে সময় উপযোগি মনে করি না।

তিনি আরও বলেন, গণতন্ত্র পূন:প্রতিষ্ঠার জন্য আমরা সৈয়দ আশরাফ ও তাঁর নেত্রীকে সহযোগিতা করতে চাই। জঙ্গিবাদকে ঠেকানোর জন্য জাতীয় ঐক্য গঠনের জন্য আমরা আওয়ামী লীগের সঙ্গে কাজ করতে চেয়েছি। আমাদের নেত্রীও চেয়েছেন। সেই দিকে আমরা সৈয়দ আশরাফের দৃষ্টি আকর্ষণ করি।

সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক যৌথসভায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে আশরাফুল ইসলাম বলেন, নির্বাচন কমিশনসহ সকল সাংবিধানিক ইনস্টিটিউশনকে বিতর্কমুক্ত রাখতে হবে। আমরা যদি সকল প্রতিষ্ঠানকেই বিতর্কিত করি তাহলে গণতন্ত্র থাকবে না, আইন থাকবে না।

তিনি বলেন, আমরা যদি হাইকোর্টকে বিতর্কিত করি, সুপ্রিম কোর্টকে বিতর্কিত করি, নির্বাচন কমিশনকে বিতর্কিত করি, তাহলে আমরা যাব কোথায়? আমরা যদি সকল সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানকে বিতর্কিত করি তাহলে সভ্যতা থাকবে না।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মামলা প্রসঙ্গে শামসুজ্জামান দুদু বলেন, সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে বিরোধীদল নিশ্চিহ্ন করার অপউদ্দেশ্য তড়িঘড়ি করে বিভিন্ন মামলায় বিএনপির মহাসচিবসহ অন্যান্য নেতাদের বিরুদ্ধে বিচার প্রক্রিয়া শুরু করেছে।

সরকারের এসব কর্মকাণ্ড রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এবং দূরভিসন্ধিমূলক বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার বাড়ি ও জমি বাজেয়াপ্ত হয়েছে পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ মামলায় সাদেক হোসেন খোকার অনুপস্থিতে রায় দেওয়া হয়েছে। তার বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন কালিমা লেপনের হীণউদ্দ্যেশেই এই রাজনৈতিক নগ্নতার বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছে সরকার।

এ সময় দেশে পরিচালনায় ব্যর্থতার দায়ভার নিয়ে সরকারকে অবিলম্বের পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ নির্বাচনের পথ সুগম করার আহ্ববান জানান শামসুজ্জামান দুদু।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সহ-প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশাররফ হোসেন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, শহিদুল ইসলাম বাবুল, আবদুল আওয়াল খান, সহ তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আমিরুজ্জামান খান শিমুল প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Comment moderation is enabled. Your comment may take some time to appear.